বাংলাদেশের ৪৪ ডট

ফরম্যাট টি-টোয়েন্টি হলেও প্রথম দশ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ছিল ৫০ রান। এই ফরম্যাটের সঙ্গে যা একেবারেই বেমানান।

এশিয়া কাপের ১৫তম আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে বাংলাদেশ সংগ্রহ করেছে ৭ উইকেটে মাত্র ১২৭ রান। বিশ ওভারের খেলায় ৪৪ বলে রানই করতে পারেনি টাইগাররা।

শারজায় টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। মুজিব উর রহমানের প্রথম ওভারের শেষ বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন নাঈম শেখ (৬)। দ্বিতীয় ওভার করতে এসেও সেই শেষ বলে উইকেট নেন এই স্পিনার। আনামুল হক বিজয়কে (৫) ফেরান এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলে।

সাকিব আল হাসান নাভিন উল হককে পরপর দুটি চার মেরে ভালো কিছুর আভাস দিলেও বাধা হয়ে দাঁড়ান মুজিব। নিজের তৃতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে ১১ (৯) রানে বোল্ড করেন সাকিবকে।

রশিদ খান তার প্রথম ওভার করতে এসেই তুলে নেন মুশফিকুর রহিমের উইকেট। ১ রান করা মুশফিককে এলবিডব্লু করেন এই লেগ স্পিনার।

হালের হার্ড হিটার খ্যাতি পাওয়া আফিফ হোসেনকেও (১২) এলবিডব্লু করে ফেরান রশিদ। ৫৩ রানে ৫ উইকেটে হারিয়ে বিপাকে পড়া দলের হাল ধরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মোসাদ্দেক হোসেন।

দুজনের জুট থেকে ৩৬ রান। লম্বা সময় অফ-ফর্মে থাকা মাহমুদউল্লাহ আজও রানের থেকে বেশি বল খেলেছেন। রশিদের বলে ক্যাচ দেওয়ার আগে ২৭ বলে করেন ২৫ রান। এক ঝাঁক ব্যর্থ ব্যাটারের মাঝে আলো ছড়িয়েছেন কেবল মোসাদ্দেক হোসেন। শেষ দিকে শেখ মেহেদীকে নিয়ে ৩৮ রানের জুটি বেঁধে মোসাদ্দেক খেলেছেন ৩১ বলে ৪টি চার ও ১ ছক্কায় ৪৮ রানের ইনিংস। মেহেদীর ব্যাটে আসে ১২ বলে ১৪ রান।

আফগানিস্তানের পক্ষে সমান ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন মুজিব উর রহমান ও রশিদ খান।

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ