বিপিএলে দলের মালিক হচ্ছেন মাশরাফী

এশিয়া কাপের ডামাডোলে অনেকটা নিভৃতেই চলছে বিপিএলের কার্যক্রম। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের আগামী তিন মৌসুমের জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে আগ্রহ প্রকাশের সময়সীমা শেষ হয়েছে মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট)। ৭টি ফ্র্যাঞ্চাইজির বিপরীতে যেখানে আগ্রহ দেখিয়েছে ৯টি প্রতিষ্ঠান।

নতুন বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ফিরছে পুরনোরা। গেলো তিন মৌসুম দেখা যায়নি রংপুর রাইডার্সকে। তবে এবার বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকানাধীন এই ফ্র্যাঞ্চাইজি আগামী তিন মৌসুমের জন্য বিপিএলে যুক্ত হতে আগ্রহী। গেলো আসরে অংশ নেয়া তিন ফ্র্যাঞ্চাইজি আকতার, ফরচুন এবং প্রগতি গ্রুপ আগামীতেও বিপিএলে ফ্র্যাঞ্চাইজি স্বত্ব নিতে চায়।

আগ্রহ দেখিয়েছে নতুন চারটি প্রতিষ্ঠান। গত আসরে ফরচুন বরিশালের স্পন্সর হিসেবে থাকলেও, এবার এককভাবে ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে চায় মোনার্ক হোল্ডিংস। যে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পরোক্ষভাবে যুক্ত আছেন সাকিব আল হাসানও। গেলোবার শেষ মুহূর্তে ব্যাংক গ্যারান্টি ইস্যুতে ফ্র্যাঞ্চাইজি স্বত্ব পায়নি রুপা অ্যান্ড মার্ন গ্রুপ। তাদের সঙ্গে নতুন যুক্ত হয়েছে ফিউচার স্পোর্টস ও বৈশাখী গ্রুপ। গুঞ্জন আছে ফিউচার স্পোর্টসের সঙ্গে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকানায় থাকতে পারেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাও।

তবে বিপিএলে দেখা যাবে না তিন হেভিওয়েট, বেক্সিমকোর মালিকানাধীন ঢাকা ডায়নামাইটস, জেমকন গ্রুপের খুলনা টাইটান্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে। গত আসরেও ছিলো না বেক্সিমকো ও জেমকন। কিন্তু বিপিএলের সবচেয়ে সফল দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের না থাকাটা অবাক করার মতই।

বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে বিদেশি ক্রিকেটার না পাওয়াই এর মূল কারণ। কিন্তু বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল চায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স থাকুক বিপিএলের সঙ্গে। যার জন্য তাদের আবেদনের জন্য ৭ দিনের বাড়তি সময় মঞ্জুর করেছে বিসিবি।

তবে সমস্যা একটা থেকেই যাচ্ছে। সেটা বিপিএলের সঙ্গে আরব আমিরাতের টি-২০ লিগের সাংঘর্ষিক সূচি। এরই মধ্যে চড়া পারিশ্রমিকে তারকা ক্রিকেটারদের দলে ভিড়িয়েছে ইন্টারন্যাশনাল লিগের দলগুলো। ফলে বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো পাচ্ছে না কাঙ্খিত খেলোয়াড়দের। তাই বিপিএলের সূচি পরিবর্তন করা যায় কি না এমন আলোচনাও উঠেছে। সূচি অনুযায়ী আগামী ৫ জানুয়ারি থেকে ১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা বিপিএলের নবম আসর।

Related articles

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বাধিক পঠিত

Ooho, don't do this