লিজেন্ডস ক্রিকেট লিগে সেরা অলরাউন্ডার এবং মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ারের জোড়া পুরস্কার পেলেন অলক কাপালি

রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচের শেষ মুহূর্তে হেরে গেল বাংলাদেশ লিজেন্ড। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে অলক কাপালি এবং ধীমান ঘোষের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ১১ ওভারে ৯৮ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে তিন বল হাতে রেখে আট উইকেটে জয়লাভ করে নিউজিল্যান্ড লিজেন্ডস। তবে ম্যাচ হারলেও এই ম্যাচে অলরাউন্ডার পারফরম্যান্স করে সেরা অলরাউন্ডার এবং মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার নির্বাচিত হয়েছেন অলক কাপালি।

ব্যাট হাতে ২১ বলে ৩৭ রানের পাশাপাশি বল হাতে ২৬ রানে তুলে নেন একটি উইকেট। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ১১ ওভারে অলক কাপালি এবং ধীমান ঘোষের ঝড়ে ৯৮ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ লিজেন্ডস।

বৃষ্টি বিঘ্নত ম্যাচ নির্ধারিত সময়ের ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট পরে শুরু হয়। যার ফলে প্রতি দলের ব্যাটিং ইনিংস থেকে ৯ ওভার করে কেটে নেওয়া হয়। টসে হেরে ব্যাটিং নেমে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম দুই ওভারের মধ্যে আউট হয়ে ফেরেন বাংলাদেশ লিজেন্ডসের ২ ওপেনাররা।

প্রথম ম্যাচের মতো এদিনও রানের খাতা খোলার আগে ফেরেন নাজিমউদ্দিন। অন্য ওপেনার মেহরাব হোসেন অপি করতে পারেন মোটে ১ রান। তিনে নেমে ঝড়ের আভাস দেন আফতাব আহমেদ।

তবে ৯ বলে ১টি করে চার-ছয়ে ১৩ রান করে বিদায় নেন তিনিও। ১৫ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ লিজেন্ডস। সেই পুরানো বাংলাদেশের চিত্র মনে হচ্ছিল তখন।

তবে ম্যাচের দৃশ্যপট বদলে দেন কাপালি এবং ধীমান। এই দুই ব্যাটসম্যান ৫২ বলে ৮৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন। শুরুতে কিছুটা ধীর শুরু করলেও সময়ের সঙ্গে আক্রমণাত্মক হন দুইজনই। এরমধ্যে কাপালি ছিলেন বেশি আগ্রাসী। ২১ বলে ৩ চার ও ২ ছয়ে ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। অন্য প্রান্তে ধীমান ৩২ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে করেন অপরাজিত ৪১ রান।

টাইগারদের দেওয়া ৯৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৪ রানে প্রথম উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ওপেনার অ্যান্টন ডেভচিচকে ২ রানে ফেরান আব্দুর রাজ্জাক। তাতে কিছুটা চাপে পড়ে নিউজিল্যান্ড। তবে পেসার ডলার মাহমুদ ১ ওভারে ২১ রান দিয়ে কিউইদের চাপ এড়াতে সাহায্য করেন।

তবে অলক কাপালি এবং ইলিয়াস সানি বল হাতে নিজেদের চেষ্টা চালিয়ে যায়। এরমধ্যে কাপালি ওপেনার জেমি হাউকে ব্যক্তিগত ২৬ রানে বোল্ড করে ফেরান। তবে আবারও পেসার আবুল হাসান বোলিংয়ে এসে ১ ওভারে ১৬ রান দিয়ে বাংলাদেশ লিজেন্ডসকে এক প্রকার ম্যাচ থেকেই ছিটকে দেন।

নিজের ৩য় এবং দলীয় দশম ওভারে কাপালি বোলিংয়ে এসে ৩ বলে টানা দুই ছয়ে ১৪ রান হজম করলে ম্যাচ হারে বাংলাদেশ। কিউইদের পক্ষে ডিন ব্রাউনলি ১৯ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ে ৩১ এবং অধিনায়ক রস টেলর ১৭ বলে ৩ ছয়ে ৩০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন।

Related articles

Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বাধিক পঠিত